আজ মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮           আমাদের কথা    যোগাযোগ

শিরোনাম

  প্রতিনিধি হইতে ইচ্ছুকরা ০১৭৪৭৬০৪৮১৫ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

কেশবপুরে করোনাকালে আম বিক্রি নিয়ে দুশ্চিন্তায় চাষীরা


কেশবপুরে করোনাকালে আম বিক্রি নিয়ে দুশ্চিন্তায় চাষীরা

প্রকাশিতঃ সোমবার, এপ্রিল ১৯, ২০২১   পঠিতঃ 21735


কামরুজ্জামান রাজু, কেশবপুর (যশোর) থেকেঃ যশোরের কেশবপুরে খরায় আমের গুটি ঝড়ে পড়ার পাশাপাশি করোনাকালীন সময়ে বেপারি না আসায় চাষীরা রয়েছেন দুশ্চিন্তায়। গত বছর এ সময় চাষীরা অধিকাংশ বাগানের আম বিক্রি করে দিয়েছিলেন। করোনার কারণে আম রপ্তানিতে ব্যর্থ হলে ব্যবসায় লোকসান যাওয়ার শঙ্কায় বেপারিরা আমের বাগান কিনতে তেমন আগ্রহ দেখাচ্ছেন না বলে চাষিরা জানিয়েছেন।

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ উপজেলায় আমের মুকুলে ব্যাপক গুটি ধরেছিল। আম চাষীরা বাম্পার ফলনের স্বপ্ন দেখছিলেন। কিন্তু স¤প্রতি বয়ে যাওয়া খরা ও ঝড়ো হাওয়ার কারণে গাছ থেকে এক তৃতীয়াংশ আমের গুটি ঝড়ে পড়ে। তবে কৃষি অফিস দাবি করছেন, এই সময়ের মধ্যে বড় ধরনের কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে প্রায় ১২ হাজার মেট্রিক টন আম উৎপাদন করা সম্ভব হবে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, আবহাওয়া পরিস্থিতি অনুকূলে থাকা ও আমের ব্যবসা লাভজনক হওয়ায় কেশবপুর উপজেলায় প্রতিবছরই আবাদ বাড়ছে। এ উপজেলায় চলতি বছরে আম চাষ হয়েছে প্রায় ৬শ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে পাঁজিয়া ও সাগরদাঁড়ি ইউনিয়নে সবচেয়ে বেশি আমের বাগান রয়েছে। আমের উৎপাদন যাতে বৃদ্ধি পায় এজন্য কৃষি বিভাগ থেকে চাষীদের বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে। এ অঞ্চলে আমরুপালি, লেংড়া, ফজলি, হাড়িভাঙা, মল্লিকা, হিমসাগর থাই, গোপালভোগ, বারি ১০, দেশি, বেনারসি সিতাভোগ ও রসে ভরা বোম্বাই জাতের আম আবাদ করা হয়। এর মধ্যে হিমসাগর ও আমরুপালির চাহিদা বেশি। গত সপ্তাহে এ অঞ্চল দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ায় ও পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত না হওয়ায় অনেক আম গাছ থেকে গুটি ঝড়ে পড়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত বড় ধরনের কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হওয়ায় যে আমের গুটি আছে সেটি বড় হয়ে পরিপক্ক হতে চলেছে। বৈশাখ মাসের শেষের দিকেই ওই আম পাকতে শুরু করবে।

সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার আম বাগান ঘুরে দেখা গেছে, সম্প্রতি ঝড়ো হাওয়া ও খরার কারণে অনেক গাছ থেকে গুটি ঝড়ে পড়ে যাওয়ার পরও পর্যাপ্ত আম ধরেছে। শেষ সময়ে ভালো ফলন পেতে ছত্রাক নাশক প্রয়োগসহ আমগুলো পরিপক্ক হওয়ার আগমূহুর্ত পর্যন্ত ধরে রাখতে চাষীরা গাছের চারপাশে মাটি ঝুরঝুরে করে নিয়মিত পানি দিয়ে পরিচর্যা করে যাচ্ছেন। আবহাওয়া অনুক‚লে থাকলে বৈশাখ মাসের শেষের দিকেই আম পাকতে শুরু করলে চাষী ও বেপারিরা স্থানীয় বাজারে বিক্রি করাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে রপ্তানি করতে পারবেন বলে জানান। ইতিমধ্যে অনেক বেপারিরা বাগানে গিয়ে আমের দরদাম কষছেন। তবে করোনার কারণে ব্যবসায় লোকসান হওয়ার শঙ্কায় বেপারিরা চাষীদের কাছ থেকে আম কিনতেও অনীহা প্রকাশ করে স্বল্প দাম বলছেন।

উপজেলার বাকাবর্শী গ্রামের ইউসুফ আলী বলেন, বৃষ্টির না হওয়ায় খরার কারণে তাদের আম গাছের ৩০ ভাগ গুটি ঝড়ে পড়েছে। করোনার কারণে এ বছর আমের দাম নিয়ে তিনি চিন্তিত। পরিস্থিতি ভালো না হলে আম বিক্রিতে তিনি লোকসান হওয়ার আশঙ্কা করছেন।
উপজেলার মজিদপুর গ্রামের আম চাষী মোতাহার হোসেন বলেন, তার একটি বাগানে ৫৩টি আম গাছ রয়েছে। গতবছর প্রায় ১ লাখ টাকায় বেপারির কাছে বাগানের আম বিক্রি করেছিলেন। করোনার কারণে এবার ওই আম বাগানের দাম বেপারী এসে মাত্র ২০ হাজার টাকা বলেছেন। যে কারণে তিনি ন্যায্য মূল্যে আম বিক্রি করতে পারবেন বলে মনে করছেন না।

উপজেলার পাঁজিয়া ইউনিয়নের গড়ভাঙ্গা গ্রামের বেপারী আনিসুর রহমান বলেন, এ বছর ৯টি বাগান থেকে ৩ শতাধিক আম গাছ কিনেছেন। এর মধ্যে বোম্বাই, লতা ও হিমসাগর জাতের আম গাছ বেশি। কিছুদিন পরেই গাছ থেকে আম পাড়া শুরু করবেন। তবে করোনার কারণে লকডাউন চলমান থাকলে লোকসানের বিকল্প নেই। এজন্য তিনি সাহস করে বেশি বাগানের আম কিনছেন না। এ কারণে তার মতো অন্য আম ব্যবসায়ীরাও চিন্তিত।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মহাদেব চন্দ্র সানা বলেন, বড় ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে চলতি বছরে উপজেলার ৬শ হেক্টর জমিতে আবাদ করা গাছ থেকে প্রায় ১২ হাজার মেট্রিক টন আম উৎপাদন সম্ভব। খরার কারণে আমের গুটি ঝড়ে পড়া রোধ করতে চাষীদের গাছের গোড়ায় পানি দিতে বলা হয়েছে। এছাড়া আম গাছের পোকা ও রোগ দমনের জন্য চাষীদের কিটনাশক এবং ছত্রাক নাশক স্প্রে করতে বলাসহ বিভিন্ন পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। 

কামরুজ্জামান রাজু / কামরুজ্জামান রাজু


মন্তব্য করুন

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে কেশবপুরে ছাত্রলীগের দোয়া মাহফিল

জীবনযুদ্ধে জয়ী আকলিমা চাকরি পেলেন পৌরসভায়

গাজায় ইসরাইলি হামলায় কুদস বিগ্রেডসের এক কমান্ডার শহীদ

তৃতীয় ভেটো দিল আমেরিকা; গাজায় হামলা চালিয়ে যেতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উসকানি

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের টাকার হিসাব চাওয়ায় সংঘর্ষ, আহত ৩০

কেশবপুরে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন

কেশবপুরে বোরো ধান-চাল সংগ্রহে লটারি অনুষ্ঠিত

ঢাকামুখী যাত্রীর চাপ, গুনতে হচ্ছে বাড়তি ভাড়া

আদর্শ মানুষ গড়ার কৌশল (পর্ব-৪)

অবশেষে গাজায় ইসরাইলি হামলার ‘তীব্রতম নিন্দা’ জানাল ওআইসি

বাইডেনের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান বয়কট করছে মুসলিম গ্রুপগুলো

অতীতের সব রেকর্ড ভঙ্গ: ইসরাইল অভিমুখে ছোড়া হলো ৩,০০০ রকেট

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

যশোরে এবার সরকারি চালসহ ঘাতক দালাল নিমূল কমিটির নেতা আটক

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

ব্যাচমেট হিসেবে সাইয়েমার পক্ষে ক্ষমা চাইলেন কেশবপুরের এসিল্যান্ড

আমাদের নিউজ পোর্টাল আপনার কেমন লাগে ?

  খুব ভালো

  ভালো

  খুব ভালো না

  ভালো লাগে না

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা